সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে আম গাছ থেকে গৃহকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার – গ্রামীন নিউজ২৪ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গাঁজাসহ আটক এক – গ্রামীন নিউজ২৪ যৌক্তিক কারণ দেখাতে না পারায় জরিমানা গুনতে হচ্ছে সড়কে – গ্রামীন নিউজ২৪ গত ২৪ ঘন্টায় রংপুর বিভাগে মৃত্যু ১০ শনাক্ত ২০২ – গ্রামীন নিউজ২৪ কঠোর লকডাউনের প্রথম দিন মনিটরিংএ নির্বাহী কর্মকর্তা ‌মামুন ‌- গ্রামীন নিউজ২৪ ফিল্ডিংএ বাংলাদেশ দল – গ্রামীন নিউজ২৪ ঝড়ো হাওয়ার শঙ্কায় সমুদ্রবন্দর গুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত – গ্রামীন নিউজ২৪ কঠোর লকডাউনে ২৩ দফা নির্দেশনা – গ্রামীন নিউজ২৪ রামেক হাসপাতালে করোনায় ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ২২ – গ্রামীন নিউজ২৪ বাগেরহাটের ফকিরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬ – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটের উন্নয়ন মূলক কাজ চলছে... সাথেই থাকুন! গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

ঠাকুরগাঁওয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনে হুমকিতে বাঁধ ও সেতু – গ্রামীন নিউজ২৪

মোঃ মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ / ৫৪৭ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১, ৯:৪৬ পূর্বাহ্ন

ঠাকুরগাঁও জেলা শহরের ভিতর দিয়ে বয়ে যাওয়া টাঙ্গন নদের ওপর নির্মাণাধীন সেতুর দুই পাশ ভরাট করতে কাছেই ড্রেজার মেশিন বসিয়ে তোলা হচ্ছে বালু। অবৈধভাবে বালু তুলে ব্যবহার করা হচ্ছে ঠিকাদারি কাজে। এতে নদের তীর সংরক্ষণ বাঁধ, সেতু ও আশপাশের স্থাপনা ভাঙনের ঝুঁকিতে পড়েছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) ঠাকুরগাঁও কার্যালয় সূত্র জানায়, টাঙ্গন নদের ওপর সেতু নির্মাণের প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে মাটি ভরাটের জন্য ব্যয় ধরা রয়েছে ৮ লাখ। মূল ঠিকাদার ইউনুস অ্যান্ড ব্রাদার্স হলেও স্থানীয়ভাবে কাজটি করছেন স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ। ২০১০ সালের বালুমহাল আইনমতে সেতু, কালভার্ট, ড্যাম, ব্যারাজ, বাঁধ, সড়ক, মহাসড়ক, বন, রেললাইন ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা অথবা আবাসিক এলাকা থেকে সর্বনিম্ন এক কিলোমিটারের মধ্যে বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ। টাঙ্গন নদের পাড়ে গিয়ে দেখা যায়, তীর সংরক্ষণ বাঁধের ১০ মিটারের মধ্যে ড্রেজার বসিয়ে মাটি তোলা হচ্ছে। পাইপের মাধ্যমে নির্মাণাধীন সেতুর পাশে সেই বালু ফেলা হচ্ছে। বালু তোলার কাজে ব্যস্ত রফিকুল ইসলাম নামে একজন জানান, তাদের বাড়ি নীলফামারীর ডিমলায়। সেতুর ঠিকাদারের লোকজনের সঙ্গে চুক্তি করে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু তুলছেন তারা। এ কাজ শেষ হতে আরও ১০-১৫ দিন লাগবে। পৌর শহরের কলেজপাড়া মহল্লার মোস্তাক আলম বলেন, ঠিকাদার মাটি ভরাটের খরচ বাঁচাতে নদ থেকে অবৈধভাবে বালু তুলে প্রকল্প এলাকা ভরাট করছেন। অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বিভিন্ন এলাকায় জরিমানা করছে প্রশাসন। এখানে অবাধে বালু তোলা হলেও তা বন্ধে কারও পদক্ষেপ দেখা যায় না। এলজিইডি ঠাকুরগাঁওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহারুল আলম মন্ডল বলেন, নদের বালু তুলে প্রকল্পে ব্যবহারের বিষয়টি তার জানা নেই। অভিযুক্ত ঠিকাদার বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) অনুমতি নিয়ে নদ থেকে বালু তোলা হচ্ছে। পাউবো ঠাকুরগাঁও কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, নদ থেকে বালু উত্তোলনের অনুমতি দেওয়ার এখতিয়ার আমাদের নেই। ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক কেএম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, টাঙ্গন নদে ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলনের অনুমতি কাউকে দেওয়া হয়নি।


এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর