সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সুন্দরবনের দুই জীবন্ত কিংবদন্তি – গ্রামীন নিউজ২৪ বাগমারায় পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ লকডাউনে ‘ডোরস্টেপ ডেলিভারি’দিচ্ছে ভিভো হটলাইনে কল করলেই পৌঁছে যাবে ভিভো স্মার্টফোন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মসজিদ উন্নয়নের জন্য অনুদান দিলেন এমপি পুত্র – গ্রামীন নিউজ২৪ দেশে আইপি টিভির অনুমোদন নেই তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ – গ্রামীন নিউজ২৪ করোনায় ২৪৬ জনের মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা – গ্রামীন নিউজ২৪ কয়রায় ভারী বর্ষনে রোপা আমন মৌসুমের বীজতলা নষ্ট হয়ে কৃষকের ব্যাপক ক্ষতি – গ্রামীন নিউজ২৪ করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এফডিএ’র ত্রাণ সহায়তা – গ্রামীন নিউজ২৪ শিবগঞ্জে নিখোঁজ গৃহবধূর লাশ ভাসছিল পুকুরে – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটের উন্নয়ন মূলক কাজ চলছে... সাথেই থাকুন! গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

আশ্রয়ণের অধিকার,শেখ হাসিনার উপহার – গ্রামীন নিউজ২৪

মোঃ মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ / ২৪ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : রবিবার, ২০ জুন, ২০২১, ১২:৫৬ অপরাহ্ন

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মুজিববর্ষের সেরা উপহার। ধন্যবাদ মানবতার জননী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

২০ জুন রবিবার সারা দেশের ন্যায় ঠাকুরগাঁও জেলার ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ১০০ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর করা হয়। এবারে ১০০জনের মধ্যে ১০জন তৃতীয় লিংগের সদস্য,১০জন ভিক্ষুক,৫ জন প্রতিবন্ধীদের পরিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত গৃহ উপহার হিসেবে পেয়েছেন এই ঘর। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ঠাকুরগাঁও এর মাননীয় জেলা প্রশাসক ড.কে এম কামরুজ্জামান সেলিম, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ-আল-মামুন, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. অরুনাংশ দত্ত টিটো, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরা বন্যা, সহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

নতুন আশ্রয়ণ প্রকল্পের খাসজমিতে কয়েক যুগ ধরে চালা ঘরে বাস করছিলেন রুনা লায়লা। তিনি বলেন, ‘কখনো এমন ঘর পামু ভাবি নাই। সরকারের জন্য হাজার কোটিবার দোয়া করি আমাদের জন্য এমন সুন্দর সুন্দর ঘর করার জন্য।’ আমেনা খাতুন নামের এক বৃদ্ধা বলেন, ‘জন্মের পর থেইকা এখানেই কোনো রকমে ছিলাম। ঝড়-বৃষ্টি-রোদ সবই গেছে আমাদের শইলের উপর দিয়া। এমন ঘর পাইতে যাচ্ছি, যা আমাদের জীবনের সেরা পাওয়া। এখন শুধু দিন গুনতাছিলাম যে কবে পামু।’ তৃতীয় লিংগের রুবি বলেন, ‘আমাদের অভাবের শেষ নাই। এ আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পেলাম এখন জীবনটা বদলায় দিতে পারব। আমাদের বাবা-দাদারা অনেক কষ্টে দিন যাপন করছে।’ এখন এই ঘর আমাদের জন্য আশিবাদ হয়ে থাকবে। এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে দেশের ভূমি-গৃহহীনদের জমি ও ঘর দেওয়ার কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঐ দিন ৬৬ হাজার ১৮৯টি ঘর দেওয়া হয়। সব পরিবারকে ২ শতাংশ খাসজমির মালিকানা দিয়ে সেখানে আধাপাকা ঘর করে দেওয়া হয়েছে। একই দিনে ২১ জেলার ৩৬টি উপজেলায় ৭৪৩টি ব্যারাকে তিন হাজার ৭১৫টি পরিবারকে পুনর্বাসিত করা হয়।

কেউ আর গৃহহীন থাকবে না। এমনই ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে আবাসন সুবিধার আওতায় আনার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্পটি চলমান।


এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর