সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সুন্দরবনের দুই জীবন্ত কিংবদন্তি – গ্রামীন নিউজ২৪ বাগমারায় পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ লকডাউনে ‘ডোরস্টেপ ডেলিভারি’দিচ্ছে ভিভো হটলাইনে কল করলেই পৌঁছে যাবে ভিভো স্মার্টফোন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মসজিদ উন্নয়নের জন্য অনুদান দিলেন এমপি পুত্র – গ্রামীন নিউজ২৪ দেশে আইপি টিভির অনুমোদন নেই তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ – গ্রামীন নিউজ২৪ করোনায় ২৪৬ জনের মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা – গ্রামীন নিউজ২৪ কয়রায় ভারী বর্ষনে রোপা আমন মৌসুমের বীজতলা নষ্ট হয়ে কৃষকের ব্যাপক ক্ষতি – গ্রামীন নিউজ২৪ করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এফডিএ’র ত্রাণ সহায়তা – গ্রামীন নিউজ২৪ শিবগঞ্জে নিখোঁজ গৃহবধূর লাশ ভাসছিল পুকুরে – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটের উন্নয়ন মূলক কাজ চলছে... সাথেই থাকুন! গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

গাইবান্ধায় সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথমদিনে ৪৭ টি মামলায় ২৬২৫০ টাকা অর্থদন্ড – গ্রামীন নিউজ২৪

বিশেষ প্রতিবেদকঃ / ৮৮১ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১, ২:৫৮ অপরাহ্ন

সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথমদিন গাইবান্ধা শহরের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান, শপিংমল গুলো বন্ধ থাকলেও শহরের সবচেয়ে বড় পাইকারি কাঁচা বাজার পুরাতন বাজার খোলা থাকায় লোকের সমাগম ছিল অনেক। ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি সাধারন মানুষের আনাগোনা ছিল অনেক। অনেকে এসেছেন বাজার করতে, আবার অনেকে এসেছেন লকডাউনে বাজারের পরিস্থিতি কেমন তা দেখতে। অন্যদিকে শহরে ঔষধের দোকানের পাশাপাশি ফলের দোকানগুলো খোলা দেখা যায়। ঔষধের দোকানে তেমন ভিড় লক্ষ না করা গেলেও ফলের দোকান গুলোর সামনে মানুষের ভিড় লক্ষ করা যায়।

গত জুন মাসের প্রথম থেকে দেশে করোনা সংক্রমণ ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পেতে শুরু করলে সরকার সংক্রমণ ঠেকাতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করে। কিন্তু সাধারন মানুষের মাঝে সচেতনতার অভাবে সরকারী সব পদক্ষেপ গুলো ভেস্তে যায়। এই অবস্থায় সরকার সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৮ জুন হতে ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন ঘোষনা করে। আর এই লকডাউন শেষে ১ লা জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন ঘোষনা করে। যেখানে ২১টি দিক নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (১লা জুলাই) ছিল সেই সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথমদিন। প্রথমদিনে উত্তরজনপদের ছোট জেলা শহর গাইবান্ধা থেকে স্বল্প ও দূরপাল্লার কোন বাস ছেড়ে যায়নি। সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। শহরে তিন চাকার বাহন রিক্সার ব্যাপক চলাচল লক্ষ করা যায়। তবে শহরে প্রবেশের সব গুলো মুখে পুলিশ চেক পোষ্ট বসিয়ে রিক্সা, অটো রিক্সা গুলোকে থামিয়ে দিচ্ছে। তবে ঐ সব বাহনে থাকা মানুষগুলো চেক পোষ্টের দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যদেরকে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে রিক্সা নিয়ে ঢুকে পড়ছে শহরে। সর্বাত্মক এই লকডাউনে শহরের ভিতরে পুলিশ, সেনাবাহিনীর গাড়ির টহল লক্ষ করা যায়।

অন্যদিকে গাইবান্ধার বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে করোনা সংক্রমণ ও বিস্তার রোধকল্পে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে এবং জনসচেতনতা সৃষ্টিতে জেলার সকল উপজেলায় মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয় এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়। এসময় আরোপিত বিধি-নিষেধ সমূহ কঠোর ভাবে বাস্তবায়নের লক্ষে জেলা প্রশাসনের ১২ টি ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে পুলিশ, সেনাবাহিনী, র্যা ব ও ব্যাটেলিয়ন আনসার বাহিনীর সহযোগিতায় বিভিন্ন অপরাধে ৪৭ টি মামলায় ২৬২৫০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।


এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর