সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানিয়েছে আওয়ামী লীগ – গ্রামীন নিউজ২৪ ধর্ম অবমাননার অভিযোগে বসত বাড়িতে আগুন আটক ২০ – গ্রামীন নিউজ২৪ ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যার মুল কিলার গ্রেপ্তার – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শেষ দিনে – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন দাখিলে আচরণ বিধি লঙ্গনের হিড়িক – গ্রামীন নিউজ২৪ বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন শুরু – গ্রামীন নিউজ২৪ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আগামীকাল – গ্রামীন নিউজ২৪ হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত – গ্রামীন নিউজ২৪ প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা রাবি প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের নিন্দা – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

ঠাকুরগাঁওয়ে হাসপাতাল থেকে ১০ কিলোমিটার হেঁটে বৃষ্টিতে ভিজে শিশুকে নিয়ে বাড়ি ফিরছে মা – গ্রামীন নিউজ২৪

মোঃ মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ / ৫৯৮ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে লকডাউন চলছে সারাদেশের ন্যায় ঠাকুরগাঁও জেলায় । তার সাথে মুশলধারে বৃষ্টি হচ্ছে সকাল থেকে। এই বৃষ্টির মধ্যেই সন্তানকে নিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন মা। মা এর কাছ থেকে শিশুকে কোলে নেয় দাদি। দাদির মাথায় ছাতা ধরে আছে শিশুর পিতা। এ ভাবে হেঁটে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে শহরের রোড এলাকায় যাচ্ছে তারা। কথা বলে জানা যায়, শিশুটি গত ৭দিন থেকে অসুস্থ হয়ে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি ছিল। ১ জুলাই বৃহস্পতিবার শিশুটি সুস্থ হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রিলিজ দেয় তাকে। এ অবস্থায় লকডাউন ও মুশলধারে বৃষ্টিতে বাহিরে কোন যানবাহন না থাকায় উপায় না পেয়ে শেষে পায়ে হেঁটে রাওনা দেয় পরিবারটি।

শিশুটির দাদি জানান, নাতি সুস্থ হওয়ায় আর হাসপাতালে থাকিনি। কিন্তু বের হয়ে দেখি রাস্তায় কোন রিকশা বা অটো নেই। আর তার সাথে বৃষ্টি হচ্ছে।

হাসপাতালে করোনার ভয় বেশি তাই বাধ্য হয়ে পায়ে হেঁটে রাওনা দেই বাড়ির উদ্দেশ্যে। কিন্তু এতদূর পথ পায়ে হেঁটে যেতে কষ্ট হচ্ছে। তাই কখনো শিশুটির মা তাকে কোলে নিয়ে কখনো আমি কোলে নিয়ে বাড়ির দিকে হাঁটছি। শিশুটির মা শরিফা খাতুন বলেন, আমার সন্তানকে অনেক কষ্ট করে সুস্থ করেছি। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া সন্তান সুস্থ হয়েছে। এখন বাসায় যাবো কোন যানবাহন নেই তাই বাধ্য হয়ে পায়ে হেঁটেই যেতে হচ্ছে।

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর