সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
দীর্ঘ যানজটে নাকাল যাত্রী ও চালক – গ্রামীন নিউজ২৪ লালমনিরহাটে দায়ের কোপে বৃদ্ধা মা রক্তাক্ত, ছেলে গ্রেফতার – গ্রামীন নিউজ২৪ গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা, পিস্তল ও এক রাউন্ড গুলিসহ এক মাদক কারবারী আটক – গ্রামীন নিউজ২৪ আজকে বিশ্ব করোনার আঘাতে বিপর্যস্ত – গ্রামীন নিউজ২৪ হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় মামলা করেছে র‍্যাব – গ্রামীন নিউজ২৪ সাদুল্লাপুরে ইউএনও, ওসি’র বিদায়ী সংবর্ধনা – গ্রামীন নিউজ২৪ দূরপাল্লার গাড়ি না চলায়,ভোগান্তিতে শ্রমিকরা – গ্রামীন নিউজ২৪ করোনায় আবারো মৃত্যু ২১৮ – গ্রামীন নিউজ২৪ সুন্দরবনে স্মার্ট টিমের অভিযানে ১৩ টি নৌকা আটক – গ্রামীন নিউজ২৪ ডুমুরিয়ায় প্রতিটি ঘরে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত —ডিজিএম মোঃ আবদুল মতিন – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটের উন্নয়ন মূলক কাজ চলছে... সাথেই থাকুন! গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

রংপুর বিভাগসহ ৩ জেলায় করোনায় মৃত্যু ৪৮ – গ্রামীন নিউজ২৪

গ্রামীন নিউজ ডেস্কঃ / ৯৮৮৬ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১, ২:৩২ অপরাহ্ন

করোনা ভাইরাসে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বেড়েই চলছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ পর্যালোচনা করে দেখা যায় রংপুর বিভাগ, যশোর, সিলেট ও টাঙ্গাইল জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪৮ জন।

রংপুর:

গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগের আট জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গত পাঁচ দিনে এ বিভাগে ৬৩ জনের মৃত্যু হলো।

এছাড়া গত একদিনে ১ হাজার ৯৭৫টি নমুনা পরীক্ষায় ৬৭৬ জন আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার ৩৪ দশমিক ২৩ শতাংশ।

মৃত্যু হওয়া ১৫ জনের মধ্যে দিনাজপুরে চারজন, ঠাকুরগাঁওয়ে তিন, রংপুরে তিন, লালমনিরহাটে দুই এবং পঞ্চগড়, নীলফামারী ও কুড়িগ্রামে একজন করে রয়েছেন।

সোমবার (০৫ জুলাই) রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. জাকিরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যশোরঃ

যশোরে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ১০ জন মৃত্যুবরণ করেন।

এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৮৬ জনের। ৮২০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে সনাক্তের এই সংখ্যা পাওয়া গেছে।

এদিকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গের রোগীদের চাপ অব্যাহত রয়েছে। ১৪০টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি রয়েছেন ২১২ জন।

সোমবার যশোর সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য কর্মকর্তা ডা. মো. রেহেনেওয়াজ জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার ৮২০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে ৪৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮৬ জন করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। খুলনা মেডিকেল কলেজে ৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২জন, জিন অ্যাক্সপার্টের মাধ্যমে ১০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪ জনের এবং র্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে ৩৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের হার প্রায় ৩৫ ভাগ।

সিলেট:

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫৩ জন।

সোমবার (৫ জুলাই) দুপুরে সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. সুলতানা রাজিয়া স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২৫৩ জনের সিলেট জেলায় ৭৬ জন, সুনামগঞ্জে ২১ জন, হবিগঞ্জে ৫৪ জন, মৌলভীবাজারে ৬১ জন এবং সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মারা ১০ জনের মধ্যে সিলেটের ৬ জন, হবিগঞ্জের ২ জন এবং সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারের একজন করে রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, সিলেট বিভাগে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৬ হাজার ৯৬৭ জনে। এরমধ্যে শুধু সিলেট জেলায় ১৭ হাজার ৮১৬ জন, সুনামগঞ্জে ৩ হাজার ৭৭ জন, হবিগঞ্জে ২ হাজার ৮৯২ জন ও মৌলভীবাজারে ৩ হাজার ১৮২ জন রয়েছেন।

এছাড়া সিলেট বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৪২৪ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ৩৯৬ জন, সুনামগঞ্জে ৭ জন, হবিগঞ্জে ৬ জন ও মৌলভীবাজারে ১৫ জন।

টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া অধিকাংশ রোগীই গ্রাম থেকে আসছে। এতে সহজেই অনুমেয় গ্রামাঞ্চলে করোনার সংক্রমণ বেশি হচ্ছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পাঁচ জন ও উপসর্গ নিয়ে দুই জন মারা গেছেন।
এদিকে নতুন করে জেলায় ৫৮১টি নমুনা পরীক্ষায় ২২৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৯ দশমিক ৭ শতাংশ। টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সাজেদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১২৮ জন রোগী বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫০ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৭৮ জন রোগী রয়েছেন। হাসপাতালে করোনা রোগীর বেড রয়েছে ১১৬টি। সংকুলান না হওয়ায় অতিরিক্ত রোগীদের মেঝেতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেডের সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরো জানান, করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের নাম-ঠিকানা পর্যবেক্ষণ করে তারা জানতে পেরেছেন- তাদের অধিকাংশই গ্রাম থেকে জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন।

এদিকে টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় ৮৫ জন, গোপালপুরে ২৬, সখীপুরে ২৪, ঘাটাইলে ১৭, ধনবাড়ীতে ১৬, কালিহাতীতে ১৫, বাসাইলে ১৩, দেলদুয়ারে ১২, মধুপুরে নয়, মির্জাপুরে চার, নাগরপুর ও ভূঞাপুরে তিনজন করে রয়েছেন।

এ পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল আট হাজার ৬৩১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন চার হাজার ৮৪১ জন। এ পর্যন্ত জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ১৩০ জন।


এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর