সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা ১৮ মাস পর পানিমুক্ত হলো সাতক্ষীরার চারটি গ্রাম – গ্রামীন নিউজ২৪ ওয়ানডে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা পেল  বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল – গ্রামীন নিউজ২৪ একটি বাস দিয়ে নিজের সংসার চালায় কেউ কেউ – গ্রামীন নিউজ২৪ সাতক্ষীরার দেবহাটা ও কালিগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের ৯নেতা বহিস্কার – গ্রামীন নিউজ২৪ তাহিরপুরে বিআইডব্লিওটিএর নামে চাঁদাবাজী বন্ধের প্রতিবাদে ধর্মঘট ও মানববন্ধন – গ্রামীন নিউজ২৪ পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন – গ্রামীন নিউজ২৪ মোংলায় সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে শাহবাগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মোমবাতি প্রজ্বলন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিলুপ্তপ্রায় নীলগাই উদ্ধারের পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ শ্যামনগরের শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

পীরগঞ্জে কাজ না করেই প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে গ্রামবাসী – গ্রামীন নিউজ২৪

মিনহাজুল ইসলাম মিলন রংপুর প্রতিনিধি: / ১৬১১ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩:৩৬ পূর্বাহ্ন

রংপুরের পীরগঞ্জে উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দপ্তর কর্তৃক বরাদ্দকৃত অর্থের কাজ না করেই সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য ও ইউপি চেয়ারম্যান টাকা উত্তোলন পূর্বক আত্মসাৎ করেছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত গ্রামবাসী গণস্বাক্ষর সম্বলিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করেছে।

অভিযোগ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলা প্রশাসন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা শাখার অধীনে ২০২০-২১ অর্থবছরে গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিটা) কর্মসূচির আওতায় টুকুরিয়া ইউনিয়নের তরফমৌজা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে মালিরপাড়া হয়ে যাতেরঘাট পর্যন্ত রাস্তা সংস্কারের জন্য ২ লক্ষ ৩৩ হাজার ৭শ’৬২ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। কিন্ত প্রকল্প সভাপতি ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান ও ইউপি চেয়ারম্যান আতোয়ার রহমান মন্ডলের যোগসাজসে রাস্তায় কোন প্রকার কাজ না করে উক্ত প্রকল্পের টাকা উত্তোলন পূর্বক আত্মসাৎ করেন। বিষয়টি ঐ এলাকায় জানাজানি হলে সংশ্লিষ্ট গ্রামবাসী ফুঁসে উঠে।

এ ব্যাপারে তরফমৌজা গ্রামের বৃদ্ধ রহিদুল ইসলাম, মমতাজ আলী, মমিনুল ইসলাম, সোহেল রানা এ প্রতিবেদককে জানান, গত দেড় বছরে এ সড়কে এক কোদাল মাটিও কাটা হয়নি। সড়কটির এমন বেহাল দশা যে, একটু বৃষ্টি হলেই যানবাহন দুরের কথা পায়ে হেটে চলাচল করা দুস্কর হয়ে পড়ে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিরোদা রাণী রায় বলেন, অভিযোগ দিয়ে থাকলে তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অপরদিকে উপজেলা ত্রান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মিজানুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি দেখার জন্য আমি নিজে যাবো, কাজ না করে থাকলে কাজ বুঝে নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে প্রকল্প সভাপতি ইউপি সদস্য মিজানুর রহমানের সঙ্গে একাধিকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর