সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা ১৮ মাস পর পানিমুক্ত হলো সাতক্ষীরার চারটি গ্রাম – গ্রামীন নিউজ২৪ ওয়ানডে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা পেল  বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল – গ্রামীন নিউজ২৪ একটি বাস দিয়ে নিজের সংসার চালায় কেউ কেউ – গ্রামীন নিউজ২৪ সাতক্ষীরার দেবহাটা ও কালিগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের ৯নেতা বহিস্কার – গ্রামীন নিউজ২৪ তাহিরপুরে বিআইডব্লিওটিএর নামে চাঁদাবাজী বন্ধের প্রতিবাদে ধর্মঘট ও মানববন্ধন – গ্রামীন নিউজ২৪ পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন – গ্রামীন নিউজ২৪ মোংলায় সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে শাহবাগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মোমবাতি প্রজ্বলন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিলুপ্তপ্রায় নীলগাই উদ্ধারের পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ শ্যামনগরের শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

ব্রক্ষপুত্রের পানি ফুলছড়ি পয়েন্টে বিপদসীমার ৪৭ সেন্টিমিটার উপরে – গ্রামীন নিউজ২৪

সাহিম রেজা, ফুলছড়ি থেকে ফিরেঃ / ১৬৫১ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:৪১ অপরাহ্ন

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণে ব্রহ্মপুত্রসহ জেলার সবকটি নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। সাথে নদী ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, গাইবান্ধার ফুলছড়ি পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্রের পানি গতকাল বুধবার রাত ৯ ঘটিকা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯ ঘটিকা পর্যন্ত ১২ ঘন্টায় বিপৎসীমার ৪৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আজ সারাদিন নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এর ফলে নদীর তীরবর্তী নিচু এলাকা এবং চরাঞ্চলে পানি ঢুকে পড়েছে।

পানি বৃদ্ধির ফলে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরবর্তী উড়িয়া, গজারিয়া, ফুলছড়ি, এরেন্ডাবাড়ী ও ফজলুপুর ইউনিয়নে রোপা আমন, পাট, বেগুন, পটলসহ নিম্নাঞ্চলের বিভিন্ন ফসলের জমি তলিয়ে গেছে। এদিকে, ফুলছড়ি উপজেলার উড়িয়া ইউনিয়নের গুনভরি হতে রতনপুর এবং মশামারী হতে ভুষিরভিটা যাওয়ার রাস্তাসহ বেশ কয়েকটি রাস্তা তলিয়ে যাওয়ায় ওই এলাকার লোকজনের দুর্ভোগ বেড়েছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ফুলছড়ির রতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠটি হাঁটু পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। ওই এলাকায় গবাদি পশু নিয়ে মানুষ বিপাকে পড়েছে।

নদী তীরবর্তী উড়িয়া ইউনিয়নের হাজিরহাট এলাকার আনিসুর রহমান বলেন, পানি গত ৩/৪ দিন ধরে যে ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আমাদের কি হবে তা বলে বোঝাতে পারবো না। ইতিমধ্যে আমাদের ইউনিয়নের অনেক সড়ক পানির নিচে তলিয়ে গেছে। অনেক বাড়িতে পানি উঠতে শুরু করেছে। তবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আমাদেরকে ঘর বাড়ি ছেড়ে বাঁধে এসে আশ্রয় নিতে হবে।

এদিকে পানি বৃদ্ধির কারনে ফুলছড়ি উপজেলার এরেন্ডাবাড়ী, ফজলুপুর, ফুলছড়ি, গজারিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় তীব্র নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। নদী তীরবর্তী মানুষেরা ভাঙ্গনের হাত থেকে নিজেদের সহায় সম্বল বাঁচাতে বাড়িঘর অনত্র সরিয়ে নিয়ে যেতে শুরু করেছে। ওই এলাকাগুলির অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠে হাটু পানি জমে গেছে।

এদিকে ফুলছড়ি উপজেলা দুর্যোগ ও ত্রান অফিস সুত্রে জানাযায়, বন্য কবলিত ৪ টি ইউনিয়নে ইতিমধ্যে ১০ টন জরুরী ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। আগামীতে আরোও ত্রান সামগ্রী বিতরনের কথা আছে।

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর