সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা ১৮ মাস পর পানিমুক্ত হলো সাতক্ষীরার চারটি গ্রাম – গ্রামীন নিউজ২৪ ওয়ানডে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা পেল  বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল – গ্রামীন নিউজ২৪ একটি বাস দিয়ে নিজের সংসার চালায় কেউ কেউ – গ্রামীন নিউজ২৪ সাতক্ষীরার দেবহাটা ও কালিগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের ৯নেতা বহিস্কার – গ্রামীন নিউজ২৪ তাহিরপুরে বিআইডব্লিওটিএর নামে চাঁদাবাজী বন্ধের প্রতিবাদে ধর্মঘট ও মানববন্ধন – গ্রামীন নিউজ২৪ পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন – গ্রামীন নিউজ২৪ মোংলায় সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে শাহবাগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মোমবাতি প্রজ্বলন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিলুপ্তপ্রায় নীলগাই উদ্ধারের পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ শ্যামনগরের শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

সোনাইমুড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতার হয়রানির প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন – গ্রামীন নিউজ২৪

বিশেষ প্রতিনিধিঃ / ২০২৬ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১, ৫:০৪ অপরাহ্ন

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান মো. মীরন অর রশিদকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আওয়ামী লীগ নেতার অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দলীয় ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

আজ শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকালে বজরা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চেয়ারম্যান মীর অর রশিদ।

বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, বিগত ২০১৬ সালে তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হন। পক্ষান্তরে মনোনয়ন বঞ্চিত ইকবাল হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে পরাজিত হন। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর ইকবাল হোসেন তাঁর শপথ গ্রহন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য তাঁর লোকজন দিয়ে উচ্চ আদালতে রিট করেছিলেন, কিন্তু তাতেও তিনি হেরে যান।

চেয়ারম্যান মীরন অর রশিদের অভিযোগ, নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর থেকে ইকবাল হোসেন তাঁর বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে তাঁর বিরুদ্ধে একের পর মিথ্যা ও সাজানো অভিযোগ করে বিগত পাঁচ বছর ধরে নানা হয়রানির মধ্যে রেখেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে করা প্রত্যেকটি অভিযোগেরই প্রশাসনিক তদন্তে মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। এরপরও ইকবাল হোসেনের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার বন্ধ হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে চেয়ারম্যান মীরন হোসেন উল্লেখ করেন, ইকবাল হোসেন নিজেকে স্থানীয় আওয়ামী লীগের আহবায়ক পরিচয় দিলেও বাস্তবে তা নয়। তিনি ইতোপূর্বে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০১৬ সালে দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়ার পর রাতারাতি তিনি আওয়ামী লীগার বনে যান এবং নিজেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করছেন, পাশাপাশি দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা ইকবাল হোসেন বলেন, ‘আমি তাঁর বিরুদ্ধে কোন মামলা করিনি। মামলা অন্য ব্যক্তি করেছেন। ফেসবুকে অপপ্রচারের বিষয়ে কোন প্রমাণ তিনি দিতে পারবেন না। তবে তাঁর (চেয়ারম্যানর) বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে তিনি বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন, ওই অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিতও হয়েছে; যার প্রমাণ তাঁর কাছে আছে। তা ছাড়া তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক নন, বর্তমান পুর্ণাঙ্গ কমিটির সভাপতি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি স্বাক্ষরিত কমিটি তাঁর কাছে আছে।’

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহার বলেন, বজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। সেখানে ২০১৭ সালে ইকবাল হোসেনকে আহবায়ক করে একটি কমিটি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওই কমিটিতে কেবল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি স্বাক্ষর করেছেন। তাই ওই কমিটি বৈধতা পায়নি। এ কারণে পূর্বের কমিটির সভাপতি মির্জা বাবুলই দলের দায়িত্ব পালন

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর