সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরা ১৮ মাস পর পানিমুক্ত হলো সাতক্ষীরার চারটি গ্রাম – গ্রামীন নিউজ২৪ ওয়ানডে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা পেল  বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল – গ্রামীন নিউজ২৪ একটি বাস দিয়ে নিজের সংসার চালায় কেউ কেউ – গ্রামীন নিউজ২৪ সাতক্ষীরার দেবহাটা ও কালিগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের ৯নেতা বহিস্কার – গ্রামীন নিউজ২৪ তাহিরপুরে বিআইডব্লিওটিএর নামে চাঁদাবাজী বন্ধের প্রতিবাদে ধর্মঘট ও মানববন্ধন – গ্রামীন নিউজ২৪ পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন – গ্রামীন নিউজ২৪ মোংলায় সহিংস উগ্রবাদ প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে শাহবাগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মোমবাতি প্রজ্বলন – গ্রামীন নিউজ২৪ ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিলুপ্তপ্রায় নীলগাই উদ্ধারের পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ শ্যামনগরের শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

বাসভাড়া বাড়লো ২৭ শতাংশ – গ্রামীন নিউজ২৪

গ্রামীন নিউজ ডেস্কঃ / ২৬০১ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১, ৮:২৯ অপরাহ্ন

পরিবহন ধর্মঘটের পরিপ্রেক্ষিতে সব ধরনের বাসের ভাড়া ২৭ শতাংশ করে বাড়িয়েছে সরকার। তবে বলা হয়েছে, এই ভাড়f বাড়বে শুধু ডিজেলচালিত পরিবহনের ক্ষেত্রে। আর সিএনজিচালিত বাসের ভাড়া আগেরটাই থাকবে। মাঠে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে পরিস্থিতি মনিটরিং করা হবে। ভাড়া বাড়ানোর এই সিদ্ধান্তকে অযৌক্তিক ও সাধারণ যাত্রীদের জন্য মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা বলে মনে করছেন রাজনীতিবিদ, সাধারণ যাত্রী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

পরিবহন মালিকরা বলছেন, যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করা কঠিন হবে। রাজনীতিবিদ ও নাগরিক সংগঠনের দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা বলছেন, তেলের দাম বাড়ানোর চেয়ে বাস ভাড়া অনেকে বেশি বেড়েছে। আর বাস্তবে সিএনজি ও ডিজেলচালিত বাস আলাদা ভাড়ায় চলবে না। এত এত গাড়ি নিয়ম মানছে কি না, তা ধরা সম্ভব হবে না।

 

এদিকে, ধর্মঘট অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিকরা। তারা বলছেন, তেলের দাম কমানোর আগ পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে। তারা ট্রাক ভাড়া বাড়ালে বাজারে সব জিনিসের দাম বাড়বে। এ সিদ্ধান্ত নিয়ে জনগণের ক্ষতি করতে চান না তারা। তাই তেলের দাম কমানোই একমাত্র পথ। তবে সরকারের তরফ থেকে এখনো ট্রাক মালিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়নি।

বাংলাদেশ পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মশিউর রহমান রাঙা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এই বাড়তি ভাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করাও কঠিন হবে। তবে তাদের দুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে আমরা ধর্মঘট প্রত্যাহারের বিষয়টি দেখছি। গাড়ি না চলায় মানুষের অনেক অসুবিধা হচ্ছে।’

কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) প্রেসিডেন্ট গোলাম রহমান বলেন, ‘তেলের দাম যতটুকু বেড়েছে, বাসের ভাড়া তারচেয়েও বেশি বেড়েছে। এজন্য পরিবহন মালিকদের দোষ দেই না। যারা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাদের সুবিবেচনার অভাবে ব্যবসায়ীরা এখন সবকিছুর দাম বাড়াবে। এই ঘটনাকে সারাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয় অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাবে।’

 

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনকে (বিপিসি) ক্যাবের তরফ থেকে আইনি নোটিশ পাঠানো হবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে গোলাম রহমান বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে সিরিয়াসলি চিন্তাভাবনা করছি।’

বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক বলেন, ‘যা হচ্ছে, তা যাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা ছাড়া কিছুই না। রাস্তায় কোন বাস সিএনজিতে চলে, আর কোন বাস ডিজেলে চলে, সেটা কে দেখবে? বাস্তবে সবাই ভাড়া বাড়াবে।’

বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি রুস্তম আলী খান বলেন, ‘তেলের দাম কমানোর আগ পর্যন্ত ধর্মঘট প্রত্যাহারের পরিকল্পনা নেই। বাজারে জিনিসপত্রের দাম নিয়ে জনগণ নাখোশ। এখন আমরা ট্রাকের ভাড়া বাড়ালে বাজারে প্রত্যেকটা জিনিসের দাম বাড়বে। আমরা জনগণকে এমন কষ্ট দিতে চাই না।’

 

সমঝোতার জন্য সরকারের তরফ যোগাযোগ করা হয়েছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে রুস্তম আলী খান বলেন ‘আমাদের সঙ্গে এখনো কেউ যোগাযোগ করেনি।’
সাহিম/বা.বি

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর