সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
কৃষিজমি নষ্ট করে বালু ভরাট চলমান উন্নয়নকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে – গ্রামীন নিউজ২৪ ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার ১৫ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক পেলেন যারা – গ্রামীন নিউজ২৪ আগামী তিন দিন পরে বৃষ্টির সম্ভবনা – গ্রামীন নিউজ২৪ ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের দাম কমলো – গ্রামীন নিউজ২৪ ময়মনসিংহ এইচএসসি পরীক্ষায় ৭০ হাজার ৯৪১ জন ছাত্রছাত্রী – গ্রামীন নিউজ২৪ সাদুল্লাপুরে বিনামূল্যে কৃষকের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ – গ্রমীন নিউজ২৪ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষামন্ত্রী আসছেন আগামীকাল – গ্রামীন নিউজ২৪ সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা-পুত্র নিহত- গ্রামীন নিউজ২৪ স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশ – গ্রামীন নিউজ২৪ ৬ ছাত্র হত্যা মামলার রায়ে ১৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড ও ১৯ জনের যাবজ্জীবন – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

রাজশাহীতে জিনবাহিনীর নির্যাতনের প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধার সাংবাদিক সম্মেলন – গ্রামীন নিউজ২৪

মোঃ মানিক হোসেন,রাজশাহী প্রতিনিধি: / ১৯০ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১, ৬:৪৫ অপরাহ্ন

রাজশাহী বাগমারা উপজেলার বড় বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদের মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ আলীকে জিনবাহিনী নির্যাতন করায় সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়। শনিবার (২০ নভেম্বর) বেলা ১২ টায় রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নে এ সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়।

 

মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ আলী জানান, আমি এক জন বীর মুক্তিযােদ্ধা । ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে মুক্তিযুদ্ধে সাড়া দিয়ে ভারতে ট্রেনিং গ্রহন করে দেশ স্বাধীনের লক্ষ্যে জীবন বাজি রেখে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করি । দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধের পর আমরা স্বাধীনতা লাভ করি। কিন্তু বর্তমানে বৃদ্ধ বয়সে স্বাধীন দেশে নির্যাতিত অবস্থায় জীবন যাপন করছি। আমি পেশায় এক জন মৎস্যজীবি, মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করি। আমার বাড়ির একটি বিল যার নাম

 

বিলসুতি, বিলটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর। বিলটি রাজশাহী ও নওগাঁ দুই জেলার সমন্বয়ে এবং এই বিলে প্রায় দেড় হাজার বিঘা খাস জমি। স্বাধীনতা পর থেকে বিলের চারিপাশের ৪/৫ টি ইউনিয়নের প্রায় ২৫/৩০ হাজার মানুষ মাছ জীবিকা নির্বাহ করে। কিন্তু বিহানালী ইউনিয়নের মুক্তি যুদ্ধের সংগঠক ও আওয়ামী লীগের সভাপতি মরহুম কফিল উদ্দীন সরদারের মৃত্যুর পর নব্য নেতা রেজাউল করিম রেজা নেতৃত্বে আসে। সে
নেতৃত্বে আসার পর ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী নিয়ে জীন বাহিনী নামক একটি বাহিনী গঠন করে বিভিন্ন অসামাজিক কাজের সাথে জড়িত। এরা কয়া মৌজাতে ৩৫০ বিঘা জমিতে বাঁধ নির্মাণ করে এবং বিলে সকল জেলেদের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করে। এতে সরকারের ভাবমুর্তি নষ্ট হবে, ভেবে আমি সাধারন জেলেদের নিয়ে সেখানে বাঁধা দিই। তখন রেজার নেতৃত্বে এবং এসআই আলতাফের প্রশ্রয়ে গত বছরের ২৯ নভেম্বর আমার দুই হাত পেছনে বেঁধে, চোখ বেঁধে মাজায় দড়ি লাগিয়ে আমাকে অপহরন করে। তার বাড়িতে নিয়ে খুঁটির সাথে বেঁধে নির্যাতন করে। এদিন আমার সন্তানদেরও নির্যাতন করে তারা। পরিবার উপায় না দেখে তৎকালীন ইউএনও শরিফ আহমেদ কে ফোনে করলে তিনি পুলিশ সহ উপস্থিত হয়ে আমাকে উদ্ধার করেন। কিন্তু আমি একজন মুক্তিযােদ্ধা হয়েও ইউএনও অফিস সমাজসেবা অফিস, থানা সহ সকল দপ্তরে অভিযােগ করেও কোনরকম প্রতিকার পাইনি। বর্তমানে ও এই রেজাউল করিম রেজা ও তার জীন বাহিনী আমাকে নানানভাবে হুমকি দিয়ে আসছে যেন আমি বিলে না নামি। জেলদের পক্ষে যেন কথা না বলি। বললে আমাকে গুম করা হবে বলে তারা হুমকি দিচ্ছে।

 

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার কথা বলে শতশত মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে কিন্তু কাউকে ঘর করে দিতে পারে নাই। এ বিষয়ে একাধিক অভিযােগ পুলিশ সুপারের কাছে তদন্তাধীন আছে। এ ছাড়া চাকুরি দেয়ার নাম করে মাঝগ্রামের সােহরাফের কাছ থেকে ১৬০.০০০/- বাগান্নার আফজালের নিকট হতে ৪.০০০০০/- সহ বহু মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে যাতে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।

এই জিন বাহিনী কৃষক লিগের সাধারন সম্পাদক মােজাম্মেল কে নির্যাতন করে এবং বড় বিহানালী হতে হরিণমারা রাস্তায় কাজের সময় ঠিকাদার নাজমুলের শ্রমিককে চাঁদার দাবীতে মারধর করে। আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা হয়ে ও বিভিন্ন দপ্তরে অভিযােগ করেও প্রতিকার না পেয়ে বর্তমানে আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।

 

বর্তমানে আমার উপর নির্যাতনের জেলেদের অধিকার ও নিজের নিরাপত্তার দাবীতে কোন উপায় না পেয়ে আপনাদের স্মরণাপন্ন হলাম। আপনারা জাতির বিবেক একজন অসহায় বৃদ্ধ মুক্তিযােদ্ধার পাশে দাড়াবেন এই আশা নিয়ে আজ আমি আপনাদের দরজায়।

  • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর