সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল – গ্রামীন নিউজ২৪ আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঈশ্বরদীর চেয়ারম্যান প্রার্থী রানা সরদারের প্রার্থীতা বাতিল – গ্রামীন নিউজ২৪ শিক্ষকের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন – গ্রামীন নিউজ২৪ ডুবে যাওয়ার তিনদিন পর যুবকের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার – গ্রামীন নিউজ২৪ ধেয়ে আসছে রেমাল, সন্ধ্যায় অতিক্রম করতে পারে যেসব এলাকা – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কে বাস খাদে নিহত ১ – গ্রামীন নিউজ২৪ ঘূর্ণিঝড় রেমাল: চট্টগ্রাম বন্দরের সব কাজ বন্ধ, ওঠা-নামা হচ্ছে না ফ্লাইটও – গ্রামীন নিউজ২৪ মরদেহ এখনো উদ্ধার হয়নি, তবে কাজ অনেকদূর এগিয়েছে – গ্রামীন নিউজ২৪ ১২ ফুটের অধিক জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা, ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত – গ্রামীন নিউজ২৪ ৬০৩ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ মাদককারবারি আটক – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

বরখাস্ত ডিআইজি মিজানুর রহমানের সাজা কেন বৃদ্ধি করা হবে না- তা জানতে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট – গ্রামীন নিউজ২৪

আইন আদালত ডেস্কঃ / ৯০০ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৫২ অপরাহ্ণ
  • Print
  • ঘুষ লেনদেনের মামলায় তিন বছরের কারাদন্ডপ্রাপ্ত পুলিশের বরখাস্তকৃত উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের সাজা কেন বৃদ্ধি করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। তার সাজা বাড়াতে দুদকের আনা আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দ সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেন।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

    গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম ঘুষ লেনদেনের এ মামলায় রায় দেন। রায়ে দুদকের বরখাস্ত পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে আট বছর ও মিজানুর রহমানকে তিন বছর কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া বাছিরকে ৮০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে মিজানকে দন্ডবিধির ১৬১ ধারায় ও বাছিরকে দন্ডবিধির ১৬৫ (এ) ধারায় তিন বছর করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। অপরদিকে মানি লন্ডারিং আইনের ৪ ধারায় বাছিরকে পাঁচ বছর কারাদন্ড ও ৮০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
    এরপর সাজার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন মিজানুর রহমান ও খন্দকার এনামুল বাছির।
    এছাড়া মিজানুর রহমানকে অর্থ পাচার আইনে খালাসের বিরুদ্ধেও আপিল করে দুদক।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বাসস’কে বলেন, দন্ড বিধি অনুসারে মিজানুর রহমানকে ৩ বছরের সাজা দিয়েছেন। কিন্তু দুর্নীতি দমন প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় তাকে সাজা দেয়া হয়নি। এ ধারায় ৭ বছরের সাজা আছে। তাই দুদক সাজা বৃদ্ধি চেয়ে আবেদন করে। আজ শুনানি নিয়ে আদালত সাজা বৃদ্ধি বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করে আদেশ দিয়েছেন।

    ৪০ লাখ টাকার ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে ২০১৯ সালের ১৬ জুলাই দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ দুদকের পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্লাহ বাদী হয়ে মামলাটি করেছিলেন। ২০২০ সালের ১৯ জানুয়ারি তাদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন দুদকের একই কর্মকর্তা। বাসস


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর