সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
রংপুরে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৩ সদস্যের কারাদণ্ড – গ্রামীন নিউজ২৪ উপজেলা পর্যায়ে বাজেট বরাদ্ধ ও খাতভিত্তিক বিভাজন বিষয়ক পরামর্শ সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ আগামীকাল ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসির জানাজা – গ্রামীন নিউজ২৪ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী’র শোক – গ্রামীন নিউজ২৪ রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার আগের ভিডিও প্রকাশ – গ্রামীন নিউজ২৪ শুধু রাজধানীতে চলবে ব্যাটারিচালিত রিকশা – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধায় মাদক মামলায় এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধার তিন উপজেলায় ভোট আগামীকাল – গ্রামীন নিউজ২৪ মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবলীগ নেতাসহ নিহত ২ – গ্রামীন নিউজ২৪ খোঁজ নেই ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনারের – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

এবার পোশাকের পরে জুতার দোকানে ক্রেতাদের ভিড় – গ্রামীন নিউজ২৪

মানিক হোসেন, রাজশাহী প্রতনিধি: / ৭৭৬ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২২, ৯:৫৬ অপরাহ্ণ
  • Print
  • জুতা ছাড়া কেনাকাটা অনেকটাই বেমানান। ইদের মাত্রা প্রাণবন্ত করতে রাজশাহী নগরীর জুতার দোকানগুলোতে ভিড় জমছে ক্রেতাদের। রমজানের ১৮ রোজার পর নিঃশ্বাস ফেলার সময় পাচ্ছেন না বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

    সরেজমিনে শনিবার (২৩ এপ্রিল) নগরীর জুতার দোকানগুলোতে পরিবার, বন্ধুদের উপস্থিতি । দেখা গেছে সাহেব বাজার, গণকপাড়া মোড়, ভূবনমোহন পার্ক এলাকা, রানী বাজার বাটার মোড়, অলোকার মোড়, গোরহাঙ্গা নিউমার্র্কেট, খড়খড়ি বাইপাস, বায়াবাজার, ভূগরইল মোড়, ভদ্রা, তালাইমারী, বিনোদপুর, লক্ষীপুর মোড়, ঘোষপাড়া, কোর্ট বাজারসহ বিভিন্ন এলাকার জুতার দোকানগুলোতে ক্রেতা বিক্রেতাদের কেনাবেচার চিত্র।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    ভূবনমোহন পার্র্কের সামনে ওসমান প্লাজায় ছোট বড় প্রায় ৩০ টির বেশি জুতার দোকান। বাহিরে ফুটপাতেও বাহারি ডিজাইন ও বিভিন্ন দামের জুতা দেখা গেছে সততা সু কালেকশন, লাকী সুজ, সোহানা সুজ, আকাশ সুজ, আখি সু স্টোর, সজীব সুজ, কাজী সু স্টোর, সুমি সু কালেকশনসহ দোকানে। এসব দোকানে সর্বোচ্চ ২ হাজার টাকা দামের জুতা দেখা গেছে। আর বড় বড় জুতার দোকানগুলোতে ৫ হাজার টাকা দামের জুতা।

    ব্যবসায়ীরাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বাচ্চাদের চায়না ব্র্যান্ডের জুতা বেশি চলছে। যার দাম ৮০০ থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা, মেয়েদের জুতার দাম ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। ফ্ল্যাট চটি জুতাগুলো ৫০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    গণকপাড়া মোড়ে লোটোর মার্র্কেটে রিমা খাতুন এসেছেন ছেলের জন্য জুতা কিনতে। প্রতিবছর দু’একবার বাটা, এপেক্স, লোটো, পান্ডাসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের জুতা পরিবারের জন্য কিনে থাকেন।

    তিনি জানান, অনলাইনে অর্ডার করার চেয়ে মার্কেটে এসেই কিনতে পছন্দ করি। এসে দেখছি জুতা কিনলে অফার আছে। ভালোই হলো স্বামী সন্তান সবার জন্যই আজ পছন্দমত জুতা কিনতে পারব। ফুটপাতেও জুতা দেখে এসেছি খুব খারাপ নয়। বেশির ভাগ পান্ডা ব্রান্ডের ১ হাজার ২০০ টাকা দামের জুতা দেখলাম অসাধারণ। মেয়াদ থাকছে না বলে বড় দোকানে এসেছি।

    সুমি সু স্টোরের প্রোপাইটর রাজু আহমেদ (জয়) জানান, নতুন নতুন ডিজাইন এলেও ২০ এপ্রিলের আগ পর্যন্ত জুতার বেচাবিক্রি খুব একটা ভালো ছিল না। তবে করোনার সময়ের গত দুই বছরের তুলনায় এ বছর বিক্রি ভালো হবে । কারণ, প্রতিদিন ১৫০ থেকে ২০০ জোড়া জুতা বিক্রি হচ্ছে।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    তিনি আরও জানান, মানুষের রুচির পরিবর্তন ও মানের বিষয়ে সচেতন হওয়ায় এ বছর ব্র্যান্ডের জুতার চাহিদা বেড়েছে। তবে সার্বিকভাবে সারা বছর যে পরিমাণ জুতা বিক্রি হয়, তার বড় অংশই নন ব্র্যান্ডের। আর প্রতি বছর ২৫-৩০ শতাংশ জুতা বিক্রি হয় এ ঈদুল ফিতরে।

    গণকপাড়া মোড়ের লোটো শোরুমের ম্যানেজার রিফাত বলেন, সব ঈদেই নিত্যনতুন নকশার জুতা আসে বাজারে। এছাড়া প্রতিদিনই নতুন নতুন ডিজাইনের জুতা আসছে। তবে সে তুলনায় ক্রেতা আসছে কম। আমরা আরও ভালো বিক্রি আশা করেছিলাম। কারণ দীর্ঘ সময় পর করোনা সংক্রমণ কম নিয়ে ঈদ এসেছে। তিনি বলেন, নিজস্ব উৎপাদনের পাশাপাশি বাটা দেশের বাইরে থেকে নাইকি, অ্যাডিাসসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের জুতা আমদানি করে। সেসব ব্র্যান্ডের জুতারও নতুন নতুন ডিজাইন এসেছে। এর মধ্যে হালকা জুতার ডিজাইন বেশি আনা হয়েছে।

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

     

    তারপরও সারা বছর যে পরিমাণ জুতা বিক্রি হয়, তার মধ্যে ৩০ শতাংশই ঈদের সময়ে বিক্রি । জানা গেছে, স্লিপার ও ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বেশি বিক্রি হচ্ছে। কারণ গরম অনেক বেশি। সে বিষটি মাথায় রেখে সবাই জুতা পছন্দ করছে। এ বছর বে, ওরিয়ন, লেদারের, জেনিস, ফরচুনা, জিলস, স্টেপ ভালো কালেকশন নিয়ে এসেছে। এসবের বাইরেও গত দুই-তিন বছরে নতুন ব্র্যান্ড বাজারে এসেছে।


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর