সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
রংপুরে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৩ সদস্যের কারাদণ্ড – গ্রামীন নিউজ২৪ উপজেলা পর্যায়ে বাজেট বরাদ্ধ ও খাতভিত্তিক বিভাজন বিষয়ক পরামর্শ সভা – গ্রামীন নিউজ২৪ আগামীকাল ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসির জানাজা – গ্রামীন নিউজ২৪ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী’র শোক – গ্রামীন নিউজ২৪ রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার আগের ভিডিও প্রকাশ – গ্রামীন নিউজ২৪ শুধু রাজধানীতে চলবে ব্যাটারিচালিত রিকশা – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধায় মাদক মামলায় এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধার তিন উপজেলায় ভোট আগামীকাল – গ্রামীন নিউজ২৪ মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবলীগ নেতাসহ নিহত ২ – গ্রামীন নিউজ২৪ খোঁজ নেই ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনারের – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

দিনাজপুরে অপহরনকারী সিআইডি’র এএসপি সারোয়ারসহ ৫জন জেল-হাজতে – গ্রামীন নিউজ২৪

মোসলেম উদ্দিন, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ / ৫৭৮৩ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১, ৩:৩৩ অপরাহ্ণ
  • Print
  • দিনাজপুরে চিরিরবন্দরে মা ও ছেলেকে অপহরনের পর ১৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী ঘটনায় আটক সিআইডি পুলিশের এএসপি সারোয়ার কবীর, এএসআই হাসিনুর রহমান ও কনেস্টবল আহসান উল ফারুক, ফসিউল আলম পলাশ ও হাবিব মিয়াকে আটক জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

    বুধবার (২৫ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টায় পুলিশের দু’টি পিকআপ ভ্যানের মাঠে কালো গ্লাসের সাদা মাইক্রোবাসে করে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে আটক সিআইডি পুলিশের এএসপি সারোয়ার কবীর সহ ৫ জনকে দিনাজপুর চীফ জুটিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেয়া হয়। অতিরিক্ত চীফ জুটিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিশ্বনাথ মন্ডল তাদের জেল-হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

    ঘটনার শিকার স্বজন ও প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, গত ২৩ আগস্ট রাত আনুমানিক ৯টায় চিরিরবন্দর উপজেলার নান্দেরাই গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মা জহুরা বেগম (৪৬)ও ছেলে জাহাঙ্গীর (২৫)কে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে মাইক্রোযোগে অপহরন করা হয়। এ সময় মা ও ছেলেকে মারপিটও করে অপহরনকরীরা। জহুরা বেগমের বাড়ির লোকজন র‌্যার,ডিবি পুলিশসহ বিভিন্ন জায়গায় আটকের বিষয়ে খোঁজ নেয়। কিন্তু কেউ আটকের বিষয়ে কিছু বলতে পারেনা। পরে অপহরনকারীরা মোবাইলে জহুরা বেগম এর স্বামী লুৎফর রমান ও দেবর রমজানের কাছে প্রথমে ৫০ লাখ এবং পরে ১৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবি করে।
    মঙ্গলবার হাজি দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে স্ত্রী ও সন্তানকে উদ্ধারে মুক্তিপনের টাকা দিতে যায় স্বামী লুৎফর রহমান ও দেবর রমজান আলী। তদের সাথে সিভিল পোশাকে পুলিশ রয়েছে টের পেয়ে অপহরনকারীরা সাথে থাকা মাইক্রোবাস নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ১০ মাইল নামক স্থানে পুলিশ তাদের ধরে ফেলে। অভিযানে জেলা পুলিশ ও চিরির বন্দও থানার পুলিশ অংশ নেয়।

    আটকের পর পুলিশ জানতে পারে অপহরনকারীদের মধ্যে রংপুর সি আইডি জোনের সিআইডি পুলিশের এএসপি সারোয়ার কবীর, এএসআই হাসিনুর রহমান ও কনেস্টবল আহসান উল ফারুক, ফসিউল আলম পলাশ ও হাবিব মিয়া রয়েছে।

    আজ বুধবার অপহত মা জহুরা বেগম ও ছেলে জাহাঙ্গীরকেও ডিবি অফিসে জিজ্ঞাবাদের জন্য আনা হয়।

    দিনাজপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন পিপিএম এবং বিপিএম (বার) এ বিষয়ে সাংবাদিকের কাছে মুখ খোলেননি। এমনতি তিনি মুঠোফোনও ধরেননি গণমাধ্যমে কর্মরত কারোই।
    তবে,প্রচন্ড বৃষ্টিতে উপেক্ষা করে আজ বিকেল সাড়ে ৫টায় দিনাজপুর পুলিশ সুপরের কার্যালয় হতে পুলিশের দু’টি পিকআপ ভ্যানের মাঠে কালো গ্লাসের সাদা মাইক্রোবাসে করে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে আটক সিআইডি পুলিশের এএসপি সারোয়ার কবীর সহ ৫ জনকে দিনাজপুর চীফ জুটিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেয়া হয়। বিচারক তাদের জেল-হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

    এ বিষয়ে রংপুর সিআইডির পুলিশ সুপার আতাউর রহমান জানিয়েছেন, অভিযুক্তরা কোন প্রকার অনুমতি না নিয়ে সেখানে (চিরিরবন্দর) গেছে। তাদের আটকের বিষয়টি শুনেছি। তারা কেন সেখানে গেছে, কাকে অপহরণ করেছে, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় খোঁজখবর নিয়ে তদন্ত স্বাপেক্ষে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রংপুর সিআইডির কাছে পলাশ নামে এক ব্যাক্তি চিরিরবন্দর উপজেলার আব্দুলপুর ইউনিয়নের নান্দেড়াই গ্রামের গাদুশা পাড়ার জনৈক চ্যালেঞ্জ মৌলানার ছেলে লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ টাকার প্রতারণার অভিযোগ আনে। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২৩ আগস্ট সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯ টায় সিআইডির সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ সারোয়ার কবির সোহাগ, এএসআই হাসিনুর রহমান ও কনষ্টেবল আহসান উল ফারুক, ফসিউল আলম পলাশ ও হাবিব মিয়া উক্ত লুৎফরের বাড়িতে যায়। তাকে না পেয়ে তার স্ত্রী ও ছেলেকে কালো মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যায়।


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর