সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
রাঙামাটিতে বজ্রপাতে নারীসহ ৪ জনের মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ কৃষকের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছিলেন খালেদা জিয়া: শেখ হাসিনা – গ্রামীন নিউজ২৪ ‘লাব্বাইক’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান – গ্রামীন নিউজ২৪ রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্রসহ আরসা কমান্ডার গ্রেপ্তার – গ্রামীন নিউজ২৪ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বিদায়ী সেনাপ্রধানের শ্রদ্ধা – গ্রামীন নিউজ২৪ সাগরে মিয়ানমারের ৩ যুদ্ধজাহাজ, সেন্টমার্টিনে আতঙ্ক – গ্রামীন নিউজ২৪ শিমুল-তানভীর-শিলাস্তির পর দায় স্বীকার বাবুর – গ্রামীন নিউজ২৪ চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় কাভার্ডভ্যান চালক নিহত – গ্রামীন নিউজ২৪ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট – গ্রামীন নিউজ২৪ ময়মনসিংহে পানিতে ডুবে তিন ভাই-বোনের মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

১০ বছরের সাজা কর্ণেল শহীদ উদ্দিন ও তার স্ত্রী বিরুদ্ধে – গ্রামীন নিউজ২৪

আইন আদালত ডেস্কঃ / ২০৪৮ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:১২ পূর্বাহ্ণ
  • Print
  • বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় পলাতক লে. কর্নেল (বরখাস্ত) শহীদ উদ্দিন খান ও তার স্ত্রী ফারজানা আঞ্জুম খানের ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।  কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদের ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাভোগের আদেশ দিয়েছেন বিচারক।

    আজ বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) ঢাকার অষ্টম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সৈয়দা হাফছা ঝুমার আদালত এ রায় দেন।

    আর অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এ মামলায় খোরশেদ আলম পাটোয়ারী ও সৈয়দ আকিদুল আলীকে খালাস দিয়েছেন আদালত।  একই সঙ্গে পলাতক আসামি শহীদ উদ্দিন খান ও তার স্ত্রী ফারজানার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

    এর আগে ২০১৯ সালের ১৫ জানুয়ারি রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় শহীদ উদ্দিন খানের বাসায় অভিযান চালিয়ে দুটি পিস্তল, ছয়টি গুলি, দুটি শটগান ও ৩ লাখ জালটাকা উদ্ধার করা হয়।  এ ঘটনায় ১৭ জানুয়ারি কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পুলিশ পরিদর্শক বিপ্লব কিশোর শীল বাদী হয়ে শহীদ উদ্দিন খানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন।

    মামলার তদন্ত শেষে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পুলিশ পরিদর্শক ও তদন্ত কর্মকর্তা নৃপেন কুমার ভৌমিক ২১ জনকে সাক্ষী করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।  এর পর আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দেন।  বিচার চলাকালীন বিভিন্ন সময়ে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত। দীর্ঘদিন শুনানি ও স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে এই মামলায় রায় প্রদান করা হয়।


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর