সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্রসহ আরসা কমান্ডার গ্রেপ্তার – গ্রামীন নিউজ২৪ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বিদায়ী সেনাপ্রধানের শ্রদ্ধা – গ্রামীন নিউজ২৪ সাগরে মিয়ানমারের ৩ যুদ্ধজাহাজ, সেন্টমার্টিনে আতঙ্ক – গ্রামীন নিউজ২৪ শিমুল-তানভীর-শিলাস্তির পর দায় স্বীকার বাবুর – গ্রামীন নিউজ২৪ চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় কাভার্ডভ্যান চালক নিহত – গ্রামীন নিউজ২৪ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট – গ্রামীন নিউজ২৪ ময়মনসিংহে পানিতে ডুবে তিন ভাই-বোনের মৃত্যু – গ্রামীন নিউজ২৪ পাবনায় কলেজছাত্র হত্যায় ৩ জনের যাবজ্জীবন – গ্রামীন নিউজ২৪ প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহার ভিজিএফের চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে – গ্রামীন নিউজ২৪ র‍্যাব সেজে ডাকাতি করে তারা, হাতে থাকে হাতকড়া – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

ঘোড়াঘাটে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে পাটের আবাদ, দামেও খুশি কৃষকরা – গ্রামীন নিউজ২৪

এস এম আরিফুল ইসলাম জিমন / ২০৩৯ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:১০ অপরাহ্ণ
  • Print
  • গত কয়েক বছর ধরে পাটের ন্যায্য দাম না পাওয়ায় কৃষকরা পাট চাষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন। তবে বর্তমানে এই অবস্থার একটু পরিবর্তন হয়েছে।দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় পাটের বাম্পার ফলন হয়েছে। এর ফলে গত বছরের তুলনায় হেক্টর প্রতি পাটের ফলন বৃদ্ধিসহ পাটের দাম পেয়ে খুশি এ উপজেলার কৃষকরা। দেখে মনে হচ্ছে দেশে সোনালী আঁশ পাটে সুদিন ফিরতে শুরু করেছে।

    উপজেলা কৃষি দপ্তর সুত্রে জানা যায়, এ বছর উপজেলার ৪ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার ১৪০ হেক্টর জমিতে দেশী ও তোষা জাতের পাটের চাষ করেছে কৃষকরা। হেক্টর প্রতি পাটের গড় ফলন নিধার্রন করা হয়েছে ১০.৯ বেল। আর ১৪০ হেক্টর জমি থেকে পাটের উৎপাদন নির্ধারন করা হয়েছ ১৫ শ ২৬ বেল।

    যা গত বছর হেক্টর প্রতি পাটের গড় ফলন ছিল ১০.৬বেল ও ১২৫ হেক্টর জমিতে পাটের উৎপাদন ছিল ১৩ শ ২৫ বেল। বর্তমান সময়ে পাট কাটা, পানিতে জাগ দেয়া, আশঁ ছাড়ানো ও শুকানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। অনেকে পাট শুকিয়ে বাজারে বিক্রিও করছেন।

    উপজেলার কুলানন্দপুর গ্রামের পাট চাষী সেকেন্দার আলী বলেন, গত বছর প্রতি মন পাট বিক্রি করেছি ১,৫০০ থেকে ১,৮০০ টাক পর্যন্ত। এ বছর প্রতি মন পাট বিক্রি করছি ৩,০০০ টাকা থেকে ৩,৫০০ টাকা পর্যন্ত।

    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এখলাছ হোসেন সরকার জানান, এবার পাটের উৎপাদন ভালো হয়েছে। কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পাটের ভালো দাম পাচ্ছেন। আশা করছি আগামী বছরে পাটের আরো ফলন বাড়বে। পাট সংরক্ষণ ও বাজার জাতকরণে কৃষককে উপজেলা কৃষি অফিস সবসময় বিভিন্নভাবে পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছে।


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর