সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
আগুন-লাঠির বিরুদ্ধে খেলা হবে: কাদের – গ্রামীন নিউজ২৪ ১৩৪ জনের বিরুদ্ধে শাস্তির সিদ্ধান্ত ইসির – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধায় ধর্ষন মামলায় এক যুবককের ১৪ বছরের কারাদণ্ড – গ্রামীন নিউজ২৪ মাদ্রাসার ভবন নির্মাণে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন – গ্রামীন নিউজ২৪ সেরা রিপোর্টিংয়ে দুই সাংবাদিককে ক্রেস্ট ও সম্মাননা দিলেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ – গ্রামীন নিউজ২৪ মোংলা বন্দর প্রতিষ্ঠার ৭২ বছরঃ বন্দরের সক্ষমতা বেড়েছে কয়েকগুন – গ্রামীন নিউজ২৪ রাজশাহীর ৮ জেলায় চলছে পরিবহন ধর্মঘট – গ্রামীন নিউজ২৪ জাগো২৪.নেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত – গ্রামীন নিউজ২৪ আয়াতের লাশের আরেকটি অংশ উদ্ধার – গ্রামীন নিউজ২৪ শুরু হলো মহান বিজয়ের মাস – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

তিস্তার গর্ভে দুইটি বিদ্যালয়, বালু চরে টিনের চালায় পাঠদান – গ্রামীন নিউজ২৪

আবু হাসান (আকাশ), লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ / ৬৯৬ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:৩৮ অপরাহ্ণ
  • Print
  • লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার দুইটি বিদ্যালয় তিস্তার গর্ভে চলে গেছে। স্কুল খুলে যাওয়ায় বালু চরে টিনের চালায় চলছে পাঠদান।

    উপজেলার পশ্চিম হলদিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র সাইফুল ইসলাম। গত বছর যখন সে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিলো তখন করোনা সংক্রমণের কারণে বন্ধ হয়ে যায় বিদ্যালয়। এরপর দীর্ঘ ১৮ মাস তার আর বিদ্যালয়ে যাওয়া হয়নি।অবশেষে খুলেছে বিদ্যালয়। আর সাইফুল চতুর্থ শ্রেণি থেকে উঠেছে পঞ্চম শ্রেণিতে। কিন্তু তার সেই রঙ্গীন টিনের সৌন্দর্যময় বিদ্যালয়টি আর নেই। এক মাস আগে তিস্তা নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে তার বিদ্যালয়টি। এমন অবস্থা শুধু পশ্চিম হলদিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নয়। গত ২৭ আগস্ট একই ইউনিয়নের পূর্ব হলদিবাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়েও নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। একইসঙ্গে বিলীন হয়েছে একই এলাকার কমিউনিটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রটিও।এদিকে নদী গর্ভে বিলীন হওয়া বিদ্যালয় দুটি পুনঃস্থাপনের স্থান নির্ধারণে নিয়ে দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। সড়েজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পূর্ব হলদিবাড়ী প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের পাটিকাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ পুরাতন ভবনের তিনটি কক্ষে পাঠদান দেয়া হচ্ছে। আর পশ্চিম হলদিবাড়ী প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের ওই এলাকার সাত ভাইয়ের বালু চরে একটি টিনের চালা করে পাঠদান দেয়া হচ্ছে।প্রখর রোদের কারণে ওই টিনের চালার মধ্যে ক্লাস করতে অনেক কষ্ট হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। স্থানীয় প্রশাসন বিদ্যালয় দুইটি পুনঃস্থাপনের সিদ্ধান্ত নিলে স্থান নির্ধারণ নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে।বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সালমা আক্তার বলেন, টিনের চালা ও গরম বালুর উপর ক্লাস করতে আমাদের খুব কষ্ট হচ্ছে। উপরে টিনের তাপ ও নিচে বালুর তাপ। জরুরিভাবে যদি আমাদের ভালো ক্লস রুম করা না হয় তাহলে হয়তো আর আমাদের স্কুলে আসা হবে না।

    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর