সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
আটঘরিয়ায় প্রথম বারের মতো বারি-২ মৌরি মশলা চাষ করে সফল কৃষক জহুরা বেগম – গ্রামীন নিউজ২৪ বিএসএফ সদস্যের লাশ মিলল ইছামতী নদীতে – গ্রামীন নিউজ২৪ ক্ষমতার অপব্যবহার যেন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে আহবান: রাষ্ট্রপতি – গ্রামীন নিউজ২৪ মায়ের জানাযায় অংশ নিতে এসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী ছেলে – গ্রামীন নিউজ২৪ রাখাইন রাজ্যের রাজধানীর কাছে পুলিশ স্টেশন দখল করলো আরাকান আর্মি – গ্রামীন নিউজ২৪ রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৪ আরসা সদস্য গ্রেপ্তার, অস্ত্র উদ্ধার – গ্রামীন নিউজ২৪ এখন মানুষ ৪ বেলা খায়: প্রধানমন্ত্রী – গ্রামীন নিউজ২৪ মাদারীপুর এক্সপ্রেসওয়েতে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৫ – গ্রামীন নিউজ২৪ আটঘরিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় হেলপার নিহত – গ্রামীন নিউজ২৪ প্রতারনার মামলায় যুবলীগ নেত্রী রিমান্ডে – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

মধুখালীতে মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন – গ্রামীন নিউজ২৪

মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি / ১২৭৯ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১, ১:১৮ অপরাহ্ণ
  • Print
  • ফরিদপুরের মধুখালী উপজলায় মরিচের ক্ষতি সাথী ফসল হিসব মিষ্টি কুমড়া আবাদ করে সফলতা পেয়েছেন চাষিরা। বাড়তি সার ও কিটনাশক ছাড়াই স্বল্প খরচে বিষমুক্ত সবজি মিষ্টি কুমড়া উৎপাদন করে ভাল দাম পাওয়ায় কৃষকের মুখ হাসি।

    উপজলার বিভিন্ন এলাকায় আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময় চাষিরা মরিচের ক্ষতির মধ্যেই সাথী ফসল হিসাবে মিষ্টি কুমড়ার বীজ বপণ করেন। কুমড়ার বীজ লাগাতে কোন প্রকার চাষাবাদ করতে হয় না। বাড়তি সার ও কিটনাশক ছাড়াই বেড়ে উঠে মিষ্টি কুমড়া। ৬০ থেক ৬৫ দিনের মাথায় চাষিরা মিষ্টি কুমড়া বাজারজাত করতে পারেন। জমিতে কুমড়ার মাচা হিসাবে ব্যবহার হয় মরিচ গাছ। এতে চাষিদের বাড়তি খরচ করে মাচা দেওয়ার প্রয়াজন হয় না। মরিচ গাছের মাচার নিচে ঝুলে থাকে মিষ্টি কুমড়া। উৎপাদিত কুমড়া স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে বিভিন্ন জেলাতেও পাঠানো হচ্ছে।

    প্রতি হেক্টর জমিতে সবমিলিয় খরচ হয় প্রায় ৪০ হাজার টাকা, আর কুমড়া বিক্রয় হয় দুই থেক আড়াই লাখ টাকা। চাষিরা এখন কুমড়া বাজারজাতকরণে ব্যস্ত। ভাল দাম পাওয়ায় তাদের মুখেও হাসি। উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের এক
    চাষী মোঃ আলীমউদ্দিন শেখ জানান ৩৫ শতাংশ জমিতে  মরিচের ক্ষতি সাথী ফসল হিসাবে কুমড়ার চাষ করা হয়েছে। ফলন ভাল হয়েছে। প্রায় ৪শতাধিক কুমড়া ধরেছে। প্রতিপিস কুমড়া ৭০/৮০ টাকায় বিক্রয় হবে। সেই হিসাব মতে প্রায় ৩০ হাজার টাকা বিক্রয় হবে।

    উপজলা কষি কর্মকর্তা মোঃ আলভী রহমান বলেন উপজলায় এ বছর ২ হাজার ৪শত ৩০ হেক্টর জমিতে কুমড়ার চাষ করা  হয়েছে। যা গতবারের তুলনায় ৩০ হক্টর জমি বেশি। এ অঞ্চললের মাটি মিষ্টি কুমড়া চাষের উপযোগী হওয়ায় নিরাপদ প্রকল্পের মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ে কুমড়া চাষে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে।


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর