সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
মোংলা বন্দর প্রতিষ্ঠার ৭২ বছরঃ বন্দরের সক্ষমতা বেড়েছে কয়েকগুন – গ্রামীন নিউজ২৪ রাজশাহীর ৮ জেলায় চলছে পরিবহন ধর্মঘট – গ্রামীন নিউজ২৪ জাগো২৪.নেটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত – গ্রামীন নিউজ২৪ আয়াতের লাশের আরেকটি অংশ উদ্ধার – গ্রামীন নিউজ২৪ শুরু হলো মহান বিজয়ের মাস – গ্রামীন নিউজ২৪ রাজশাহীতে গলা কেটে নারী হত্যা, কার্যকর হলো রকিবুরের ফাঁসি – গ্রামীন নিউজ২৪ হেরে গিয়েও পোলান্ড শেষ ষোলতে – গ্রামীন নিউজ২৪ তাহিরপুরে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চোরাকারবারিদের মিথ্যা মামলা: সোশ্যাল মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় – গ্রামীন নিউজ২৪ সাতক্ষীরায় বিনামূল্যে এসএসসি-৯৩ ব্যাচের অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরন – গ্রামীন নিউজ২৪ কাউকে বিশৃঙ্খলা করার অনুমতি দিতে পারে না সরকার: তথ্যমন্ত্রী – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com

ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে নির্বাচনী অফিস ভাংচুর আহত ৬ জন – গ্রামীন নিউজ২৪

মোঃ মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি / ১৭৭ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১, ১:৩৮ অপরাহ্ণ
  • Print
  • ঠাকুরগাও জেলার হরিপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এক স্বতন্ত্র প্রার্থীর একটি প্রাইভেট কার ও ৪টি মোটর সাইকেল সহ নির্বাচনী অফিস ভাংচুড়ের ঘটনা ঘটেছে।

    ২৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে হরিপুর উপজেলার তোররা বাজারে এই ঘটনা ঘটে।

    স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনী প্রচারণা নিয়ে হরিপুর সদর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলাম (চশমা মার্কা) ও নজরুল ইসলামের (ঘোড়া মার্কা) সমর্থকদের মধ্যে রাত ৯ টার দিকে দক্ষিন তোররা গ্রামে মারামারি হয়। এ সময় চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুলের নিজস্ব প্রাইভেট কার ও ৪ টি মোরসাইকেল ভাংচুড় করা হয় , আহত – ৬ জন। এর জেরে ঐ দিন রাতেই তোররা বাজারে রফিকুলের নির্বাচনী অফিস ভাংচুড়ের ঘটনা ঘটে। বিক্ষুব্ধরা চেয়ার, টেবিল ভাংচুড় করা সহ নির্বাচনী পোষ্টা ছিড়ে ফেলে। আহতদের মধ্যে দুইজনকে হরিপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। হাসপাতালে ভর্তি হওয়া দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুলের দাবি, প্রতিদণ্ডী প্রার্থী নজরুলের লোক জন তোররা গ্রামে তার নির্বাচনী বৈঠকে হামলা করে গাড়ি ভাংচুড় করে এবং কর্মী সমর্থকদের মারপিট করে জখম করে। পরে তারা আবার তোররা বাজারে রফিকুলের নির্বাচনী অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুড় চালায়। এদিকে প্রতিপক্ষের উপর হামলা প্রসঙ্গে চেয়ারম্যান প্রার্থী নজরুল ইসলাম বলেন, তার লোকজন কারো উপর হামলা করেনি বা কারো অফিস ভাংচুড় করেনি। নিজেরাই ঘটনা ঘটিয়ে আমার উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

    হরিপুর থানার ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে থানায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    উল্লেখ্য,আগামী ১১ নভেম্বর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv

    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর