সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
সন্তানকে কোলে নিয়ে চলন্ত ট্রেনের নিচে এক মা – গ্রামীন নিউজ২৪ শবেবরাতে যেসব আমল করবেন – গ্রামীন নিউজ২৪ মানিকগঞ্জে ভুট্টাক্ষেতের আড়ালে আফিম চাষ আটক এক – গ্রামীন নিউজ২৪ মোটরসাইকেল চুরির মিথ্যা অপবাদে এক যুবকের আত্মহত্যা – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধায় পৃথক অভিযানে মাদকসহ আটক তিন – গ্রামীন নিউজ২৪ মিথ্যা তথ্যের খবর ঠেকাতে নতুন আইন আসছে: আইনমন্ত্রী – গ্রামীন নিউজ২৪ সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র: পররাষ্ট্রমন্ত্রী – গ্রামীন নিউজ২৪ গাইবান্ধা পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান টাকাসহ আটক তিন দালাল – গ্রামীন নিউজ২৪ ২ সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা – গ্রামীন নিউজ২৪ গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না: হাইকোর্ট – গ্রামীন নিউজ২৪
বিজ্ঞপ্তি :
গ্রামীন নিউজ২৪টিভি পরিবারের জন্য দেশব্যাপী প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগ্যতা এইচ এসসি পাশ, অভিজ্ঞতাঃ ১ বৎসর, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন 01729188818, সিভি ইমেইল করুনঃ grameennews24tv@gmail.com। স্বল্প খরচে সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক চুক্তিতে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন ০১৭২৯১৮৮৮১৮

সোনাইমুড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতার হয়রানির প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন – গ্রামীন নিউজ২৪

বিশেষ প্রতিনিধিঃ / ২১৬৫ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১, ৫:০৪ অপরাহ্ণ
  • Print
  • নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান মো. মীরন অর রশিদকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আওয়ামী লীগ নেতার অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দলীয় ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

    আজ শনিবার (৩০ অক্টোবর) সকালে বজরা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চেয়ারম্যান মীর অর রশিদ।

    বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, বিগত ২০১৬ সালে তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হন। পক্ষান্তরে মনোনয়ন বঞ্চিত ইকবাল হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে পরাজিত হন। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর ইকবাল হোসেন তাঁর শপথ গ্রহন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য তাঁর লোকজন দিয়ে উচ্চ আদালতে রিট করেছিলেন, কিন্তু তাতেও তিনি হেরে যান।

    চেয়ারম্যান মীরন অর রশিদের অভিযোগ, নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর থেকে ইকবাল হোসেন তাঁর বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে তাঁর বিরুদ্ধে একের পর মিথ্যা ও সাজানো অভিযোগ করে বিগত পাঁচ বছর ধরে নানা হয়রানির মধ্যে রেখেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে করা প্রত্যেকটি অভিযোগেরই প্রশাসনিক তদন্তে মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। এরপরও ইকবাল হোসেনের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার বন্ধ হয়নি।

    সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে চেয়ারম্যান মীরন হোসেন উল্লেখ করেন, ইকবাল হোসেন নিজেকে স্থানীয় আওয়ামী লীগের আহবায়ক পরিচয় দিলেও বাস্তবে তা নয়। তিনি ইতোপূর্বে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০১৬ সালে দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়ার পর রাতারাতি তিনি আওয়ামী লীগার বনে যান এবং নিজেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করছেন, পাশাপাশি দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

    অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা ইকবাল হোসেন বলেন, ‘আমি তাঁর বিরুদ্ধে কোন মামলা করিনি। মামলা অন্য ব্যক্তি করেছেন। ফেসবুকে অপপ্রচারের বিষয়ে কোন প্রমাণ তিনি দিতে পারবেন না। তবে তাঁর (চেয়ারম্যানর) বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে তিনি বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন, ওই অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিতও হয়েছে; যার প্রমাণ তাঁর কাছে আছে। তা ছাড়া তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক নন, বর্তমান পুর্ণাঙ্গ কমিটির সভাপতি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি স্বাক্ষরিত কমিটি তাঁর কাছে আছে।’

    উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহার বলেন, বজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। সেখানে ২০১৭ সালে ইকবাল হোসেনকে আহবায়ক করে একটি কমিটি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওই কমিটিতে কেবল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি স্বাক্ষর করেছেন। তাই ওই কমিটি বৈধতা পায়নি। এ কারণে পূর্বের কমিটির সভাপতি মির্জা বাবুলই দলের দায়িত্ব পালন


    এ জাতীয় আরো সংবাদ
    • আমাদের ইউটিউব পেজ ভিজিট করতে লগইন করুনঃ Grameen news24 Tv
    এক ক্লিকে বিভাগের খবর